• বৃহস্পতিবার   ২৮ অক্টোবর ২০২১ ||

  • কার্তিক ১৩ ১৪২৮

  • || ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

দৈনিক খাগড়াছড়ি

আন্তর্জাতিক শিশু শান্তি পুরস্কারের জন্য মনোনীত সিরাজগঞ্জের মেয়ে

দৈনিক খাগড়াছড়ি

প্রকাশিত: ১০ অক্টোবর ২০২১  

ছবি- নিজস্ব প্রতিবেদক।

ছবি- নিজস্ব প্রতিবেদক।

 

শিশুদের নোবেল খ্যাত আন্তর্জাতিক শিশু শান্তি পুরস্কার-২০২১ এর জন্য মনোনীত হয়েছে সিরাজগঞ্জের মেয়ে প্রিয়াংকা ভদ্র। তাকে এ পুরস্কারের জন্য মনোনয়ন দিয়ে নেদারল্যান্ডস সরকারের পিস রাইটস কমিটির কাছে সুপারিশ পাঠানো হয়েছে। 

প্রিয়াংকা ভদ্র সিরাজগঞ্জ সরকারি কলেজের একাদশ শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী ও শহরের দরগা রোডের দীপক ভদ্রের মেয়ে। ১৬ বছর বয়সী এই কিশোরী তার বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ডের জন্য ‘লিঙ্গ সমতা’ ক্যাটাগরিতে আন্তর্জাতিক শিশু শান্তি পুরস্কার-২০২১ এর জন্য মনোনীত হয়েছে। 

কিডস রাইটস ফাউন্ডেশনের ওয়েবসাইট থেকে জানা যায়, প্রিয়াংকা ভদ্র একজন শিশু সাংবাদিক, লেখক ও স্বেচ্ছাসেবক। সে শিশু ধর্ষণ, বাল্যবিবাহ বন্ধ এবং নারী ও শিশুদের নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণের জন্য বিভিন্ন লেখালেখি ও ভিডিও তৈরি করেছে। সে হ্যালো বিডি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডট কম ও শিশু বার্তার একজন শিশু সাংবাদিক হিসেবে কাজ করছে। 

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, ২০১৬ সাল থেকে প্রিয়াংকা ভদ্র বাংলাদেশ ন্যাশনাল চাইল্ড পার্লামেন্টের (বিএনসিপি) সঙ্গে যুক্ত আছেন। বর্তমানে সে সিরাজগঞ্জ প্রদেশের ডেপুটি স্পিকার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছে। এছাড়াও সে ২০১৮ সাল থেকে প্রথমে শিশু সাংবাদিক এবং বর্তমানে ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে ন্যাশনাল চাইল্ড টাস্ক ফোর্সের (এনসিটিএফ) সঙ্গে যুক্ত আছে। এছাড়াও ২০১৭ সাল থেকে কিশোর গোয়েন্দা ম্যাগাজিন, ২০১৮ সাল থেকে ইউনিসেফ সমর্থিত হ্যালো বিডি নিউজ টোয়েন্টিফোর এবং শিশু বার্তার সঙ্গে শিশু সাংবাদিক হিসেবে কাজ করে যাচ্ছে প্রিয়াংকা ভদ্র। 

সে বৈশ্বিক জলবায়ু পরিবর্তন ও পরিবেশ রক্ষায় কাজ করেছে। এছাড়াও বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত হয়ে প্রতিনিয়ত বিভিন্ন মানবিক কাজ করে যাচ্ছে। প্রিয়াংকার এই অর্জনে তার শিক্ষকগণ ও পরিবারের সদস্যরা অনন্দিত। 

তার বাবা দীপক কুমার ভদ্র বলেন, ছোটবেলা থেকেই প্রিয়াংকা মানুষের প্রতি দরদি। অসহায় শিশুদের দেখলে তাদের সহযোগিতার জন্য এগিয়ে যেত। এখনও নারী ও শিশু অধিকার নিয়ে কাজ করে। তারই স্বীকৃতি স্বরূপ আন্তর্জাতিক শিশু শান্তি পুরস্কারে মনোনীত হয়েছে। সবাই আমার মেয়ের জন্য আশীর্বাদ করবেন। 

প্রিয়াংকার মা রিক্তা রানী সরকার বলেন, সারাদিন সে পড়ালেখা নিয়ে ব্যস্ত থাকে। আর পড়ালেখার ফাঁকে যখনই সে সময় পায় বিভিন্ন লেখালেখি, কুইজ প্রতিযোগিতা, বই পড়া ও বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ড করে থাকে। তার এসব কাজে আমরা পরিবার থেকে সবসময় তাকে সমর্থন করি। 

উল্লেখ্য, আন্তর্জাতিক শিশু শান্তি পুরস্কার-২০২০ পেয়েছিল বাংলাদেশি কিশোর সাদাত রহমান। তার আগের বছর এ পুরস্কার পেয়েছিল পাকিস্তানের নোবেল বিজয়ী তরুণী মালালা ইউসুফজাই। 

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখে পাঠাতে পারেন আমাদের। এছাড়া যেকোনো সংবাদ বা অভিযোগ লিখে পাঠান এই ইমেইলেঃ [email protected]