• বৃহস্পতিবার   ২৮ অক্টোবর ২০২১ ||

  • কার্তিক ১৩ ১৪২৮

  • || ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

দৈনিক খাগড়াছড়ি

রামগড়ে শরীরে কেরোসিন ঢেলে প্রতিবেশীকে পুড়িয়ে হত্যা

দৈনিক খাগড়াছড়ি

প্রকাশিত: ৬ অক্টোবর ২০২১  

ছবি- নিজস্ব প্রতিবেদক।

ছবি- নিজস্ব প্রতিবেদক।

 

খাগড়াছড়ির রামগড়ে শরীরে কেরোসিন ঢেলে চাইথোয়াই মারমা (৬৬) নামে এক ব্যক্তিকে পুড়িয়ে হত্যা করেছে এক যুবক। 

মঙ্গলবার (৫ অক্টোবর) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে রামগড় পৌরসভার মাস্টার পাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। 

এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ অভিযান চালিয়ে আরফিন শরীফ পাটোয়ারী (২৬) নামে এক যুবককে আটক করেছে। আটক আরফিন শরীফ মাস্টারপাড়া এলাকার বাসিন্দা মো. আবু আহাম্মদের ছেলে। 

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মাস্টারপাড়া থেকে রামগড় বাজারে যাওয়ার সময় শরীফ পাটোয়ারী তার ওপর আকস্মিক হামলা চালায়। ওই যুবক প্রথমে তাকে ইট দিয়ে মাথায় আঘাত করে। এ সময় তিনি মাটিতে পড়ে গেলে তার শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। পরে দগ্ধ অবস্থায় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে রামগড় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

রামগড় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. নরেন চৌধুরী জানান, তার শরীরের ৭০ শতাংশেরও বেশি পুড়ে যায়।

নিহতের ছেলে অংশেউ মারমা জানান, ঘাতক শরীফ পাটোয়ারী তাদের প্রতিবেশী। সোমবার রাতে শরীফ পাটোয়ারী তাদের ঘরে আগুন ধরিয়ে দেয়। এ ঘটনায় তার বাবা থানায় অভিযোগ করলে সে ক্ষুব্ধ হয়ে হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে। 

রামগড় থানার পুলিশের ওসি (তদন্ত) রাজীব কর জানান, ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ শরীফ পাটোয়ারীকে গ্রেফতার করেছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। ঘটনার তদন্ত করে হত্যার রহস্য উদঘাটন করা হবে।

প্রশাসনের পক্ষ হতে জানানো হয়, বিষয়টি একটি পারিবারিক সমস্যা হতে সৃষ্ট ঘটনার রুপ। এ ঘটনায় কোন প্রকার সাম্প্রদায়িক উস্কানী বা পরিবেশ অস্থিতিশীল করার চেষ্টা করা হলে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। এ ঘটনায় সবাইকে শান্ত থাকার আহবানও জানানো হয় প্রশাসনের পক্ষ হতে। 

এছাড়া ঘটনার সাথে সাথে ঘাতককে আটক করার দৃষ্টান্ত স্থাপন করায় রামগড় থানা পুলিশের প্রতিও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন স্থানয়ীয়রা। 

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখে পাঠাতে পারেন আমাদের। এছাড়া যেকোনো সংবাদ বা অভিযোগ লিখে পাঠান এই ইমেইলেঃ [email protected]