• শনিবার   ২৫ জুন ২০২২ ||

  • আষাঢ় ১২ ১৪২৯

  • || ২৫ জ্বিলকদ ১৪৪৩

দৈনিক খাগড়াছড়ি

‘নানা দুর্ভোগের অবসান হবে ২৫ জুন’

দৈনিক খাগড়াছড়ি

প্রকাশিত: ২৩ জুন ২০২২  

পদ্মা সেতু নির্মাণের সময় বিভিন্ন মহল নানাভাবে ষড়যন্ত্র করেছে। একমাত্র ষড়যন্ত্রকারীরাই পদ্মা সেতু নিয়ে দুর্নীতির কথা বলেছেন। এরই মধ্যে নিজস্ব অর্থায়নে সেতু নির্মাণের ঘোষণা দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেতু নির্মাণে সবচেয়ে ব্যয়বহুল ইঞ্জিনিয়ারিং কার্যক্রম চালানো হয়েছিল। দক্ষিণ অঞ্চলের মানুষের নানা দুর্ভোগের অবসান ও আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে অবদান রাখতেই নির্মাণ করা হয় সেতুটি।

রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা উপ-কমিটি আয়োজিত ‘বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে পদ্মা সেতুর অবদান’ শীর্ষক সেমিনারে এসব কথা বলেন বক্তারা।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা উপ-কমিটির চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সাহাব উদ্দিন চুপ্পু বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক দূরদর্শিতা প্রজ্ঞা ও তার ফলেই আজকে পদ্মা সেতুর বাস্তবায়ন হয়েছে। অর্থনৈতিক অগ্রগতি ঘটবে এখন সেটা সবাই স্বীকার করছেন। বিশ্ব ব্যাংক যে অভিযোগ করেছিল সে অভিযোগকে সবাই বলেছিল যে এটা হয়তো সত্য। কিন্তু আশ্চর্যের বিষয় হলো আমরা কোনো কিছু না দেখেই সেটা বিশ্বাস করে প্রচার করলাম দুর্নীতি হয়েছে। গণমাধ্যমে ফলাও করে প্রচার হয়।

তিনি বলেন, বিশ্ব ব্যাংক বহুবার চেয়েছিল আমাদের সঙ্গে সম্পৃক্ত হয়ে একটি তদন্ত করতে, কিন্তু আমরা সেটি করিনি। তারা যখন বুঝতে পেরেছে যে তাদের ধারণা ঠিক হয়নি তখন তারা এখানে অর্থায়ন করতে চেয়েছিল। এরই মধ্যে প্রধানমন্ত্রী জাতীয় সংসদে বলেছেন আমরা নিজস্ব টাকায় অর্থায়নে আমাদের পদ্মা সেতু করবো। তারা নানা বিবৃতি ও সমালোচনা করেন। যারা পদ্মা সেতু নিয়ে দুর্নীতি হয়েছে বলেছে তারাই ছিল ষড়যন্ত্রকারী।

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখে পাঠাতে পারেন আমাদের। এছাড়া যেকোনো সংবাদ বা অভিযোগ লিখে পাঠান এই ইমেইলেঃ [email protected]