• বুধবার   ১৯ জানুয়ারি ২০২২ ||

  • মাঘ ৭ ১৪২৮

  • || ১৫ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

দৈনিক খাগড়াছড়ি

আরও এগোলো পদ্মা সেতু-মেট্রোরেল-পায়রা বন্দরের কাজ

দৈনিক খাগড়াছড়ি

প্রকাশিত: ১৪ জানুয়ারি ২০২২  

স্বপ্নের পদ্মা সেতুর কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। বহুল প্রতীক্ষিত মেট্রোরেলের কাজও এগিয়ে চলছে দ্রুতগতিতে। পুরোদমে চলছে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র, মাতারবাড়ি, পায়রা বন্দর প্রকল্পের কাজ। এমন আট মেগা প্রকল্প বিশ্ব কাতারে আরও এগিয়ে নিচ্ছে বাংলাদেশকে। সবগুলো সরকারের অগ্রাধিকার প্রকল্প। রয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সার্বক্ষণিক তদারকি। দেশের উন্নয়নমূলক এসব প্রকল্পের সুফল প্রাপ্তির দ্বারপ্রান্তে বাংলাদেশ।

পদ্মা সেতু ২০২২ সালের জুন মাসে খুলে দেওয়া হবে। মেট্রোরেল চালু হবে ২০২২ সালের ডিসেম্বর মাসে। মেগা প্রকল্পে অন্তর্ভুক্ত না হলেও কাঙ্ক্ষিত কর্ণফুলী টানেল চলতি বছরের অক্টোবরে খুলে দেওয়া হবে।

চলতি বছরের ডিসেম্বর পর্যন্ত মোট আটটি মেগা প্রকল্পের অগ্রগতি প্রকাশ করেছে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়। সরকারের মেগা প্রকল্পগুলোর মধ্যে রয়েছে- পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্প, মেট্রোরেল প্রকল্প, পদ্মা সেতুর রেল সংযোগ প্রকল্প, দোহাজারী থেকে রামু হয়ে কক্সবাজার এবং রামু হয়ে ঘুমধুম পর্যন্ত রেললাইন নির্মাণ প্রকল্প, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্প, মাতারবাড়ি কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্প, পায়রা গভীর সমুদ্রবন্দর নির্মাণ প্রকল্প ও সোনাদিয়া গভীর সমুদ্রবন্দর নির্মাণ প্রকল্প।

মেগা প্রকল্প প্রসঙ্গে পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান বলেন, মানুষের কোভিড ভীতি কমেছে। কাজের গতি বেড়েছে। সরকার যে সময়সীমা বেঁধে দিয়েছিল তার মধ্যেই মেগা প্রকল্পগুলো বাস্তবায়ন করে ফেলবো। আমাদের সর্বোচ্চ পর্যায় থেকে এগুলো সব সময় মনিটরিং করা হয়। তিনটি প্রকল্প চলতি বছর সবার জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হবে। ফলে প্রবৃদ্ধি বাড়বে। প্রবৃদ্ধি কী পরিমাণ বাড়বে তার সঠিক হিসাব করা মুশকিল। তবে এটা বলতে পারি মেগা প্রকল্প খুলে দেওয়ার মাধ্যমে দেশের অর্থনীতির চাকা কয়েকগুণ গতিতে ঘুরবে। মানুষ অর্থনৈতিক মুক্তি পাবে।

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখে পাঠাতে পারেন আমাদের। এছাড়া যেকোনো সংবাদ বা অভিযোগ লিখে পাঠান এই ইমেইলেঃ [email protected]