• মঙ্গলবার   ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ ||

  • আশ্বিন ১২ ১৪২৯

  • || ২৯ সফর ১৪৪৪

দৈনিক খাগড়াছড়ি

সহায়-সম্বলহীন পরিবারের পাশে ২৩ বিজিবি

দৈনিক খাগড়াছড়ি

প্রকাশিত: ১০ সেপ্টেম্বর ২০২২  

ছবি- দৈনিক খাগড়াছড়ি।

ছবি- দৈনিক খাগড়াছড়ি।

খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গা এলাকার দরিদ্র পিতার বিবাহযোগ্য মেয়ের বিয়ে দিয়ে যেন দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন সীমান্তসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় নিয়োজিত খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গা জামিনীপাড়া ২৩ বিজিবি জোন অধিনায়ক লে. কর্নেল এবিএম জাহিদুল করিম।

শুক্রবার (৯ সেপ্টেম্বর) দুপরে এ বিয়ের অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়।

বিয়ে অনুষ্ঠানে প্রায় দুই শতাধিক বর যাত্রীর খাওয়া থেকে শুরু করে স্বর্ণালংকার ও নব দম্পতি পরিবারটি স্বাবলম্বী হওয়ার জন্য উপহারসহ ধুমধাম আয়োজনে সম্পন্ন করা হয়।

কন্যার দায়গ্রস্ত পিতা মোহন মিয়ার স্বপ্ন বাস্তবায়ন হওয়ায় খুশি পরিবারটি। তাই খুশিতে আবেগের কমতি নেই হতদরিদ্র মোহন মিয়ার। তিনি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছে বিজিবি’র প্রতি।

সীমান্তে শান্তি, সম্প্রীতি উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখার পাশাপাশি এমন মানবিক কর্মকাণ্ডের সাদুবাদ জানিয়েছে স্থানীয়রা।

বিয়ে অনুষ্ঠানের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত উপস্থিত ছিলেন ২৩ বিজিবি জোন অধিনায়ক লে. কর্নেল এবিএম জাহিদুল করিম।

জানা যায়, খাগড়াছড়ির মাটিরাঙা উপজেলার মাটিরাঙ্গা উপজেলায় তবলছড়ি গৌরাঙ্গপাড়ার বাসিন্দা হতদরিদ্র মোহন মিয়া ৬ কন্যা সন্তানের জনক। ইতিমধ্যে চার জনের বিয়ে দিয়েছেন। ৫ম বিবাহযোগ্য মেয়ে হালিমা আক্তারের বিয়ের দিনক্ষণ চূড়ান্ত হলেও আর্থিক সংকটে পড়ে পরিবারটি। এমন খবরে অসহায় এই পরিবারটির পাশে দাঁড়ান বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ২৩ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল এবিএম জাহিদুল করিম। প্রায় দুই শতাধিক বর যাত্রীসহ অতিথিদের খাওয়া-আপ্যায়ন থেকে শুরু করে স্বর্ণালংকার ও নব দম্পতি পরিবারটি স্বাবলম্বী হওয়ার জন্য উপহার হিসেবে একটি গাভী প্রদান করা হয়। আর পুরো অনুষ্ঠানটি নিজে উপস্থিত থেকে বাস্তবায়ন করেছেন তিনি। দুর্গম পাহাড়ে এমন আয়োজনে খুশি স্থানীয়রা।

২৩ বিজিবি’র জোন অধিনায়ক লে. কর্নেল এবিএম জাহিদুল করিম বলেন, সীমান্ত সুরক্ষার দায়িত্বের পাশাপাশি এসব এলাকার অস্বচ্ছল মানুষের জন্য সামাজিক ও মানবিক দায়বদ্ধতা থেকে এই উদ্যোগ নেওয়া।

ব্যতিক্রমী এই মানবিক কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে ভবিষ্যতেও অসহায় মানুষের পাশে থাকবে ২৩ বিজিবি এমনটাই প্রত্যাশা সকলের।

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখে পাঠাতে পারেন আমাদের। এছাড়া যেকোনো সংবাদ বা অভিযোগ লিখে পাঠান এই ইমেইলেঃ [email protected]