• মঙ্গলবার   ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ ||

  • আশ্বিন ১২ ১৪২৯

  • || ২৯ সফর ১৪৪৪

দৈনিক খাগড়াছড়ি

মাটিরাঙ্গায় শহীদ ইব্রাহীম চত্বর স্থাপন

দৈনিক খাগড়াছড়ি

প্রকাশিত: ৭ সেপ্টেম্বর ২০২২  

ছবি- দৈনিক খাগড়াছড়ি।

ছবি- দৈনিক খাগড়াছড়ি।

খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গায় ২০০১ সালে বিএনপির হামলায় নিহত শহীদ ইব্রাহীম, শহীদ ইয়াছিন মেম্বার ও শহীদ মোহাম্মদ আলীর স্মরণে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, আওয়ামী যুবলীগ ও সকল সহযোগী সংগঠন, মাটিরাঙ্গা উপজেলা পৌর ও সকল ইউনিয়ন শাখা কর্তৃক আয়োজিত শহীদ ইব্রাহীম চত্বর স্থাপন, শহীদ ইয়াছিন মেম্বার, শহীদ মোহাম্মদ আলী ও শহীদ ইব্রাহীম স্মরণে শোক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

৭ সেপ্টেম্বর বুধবার সকালে মাটিরাঙ্গা পৌরসভা সংলগ্ন মাঠে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ মাটিরাঙ্গা উপজেলা শাখার (ভারপ্রাপ্ত) সভাপতি রকিবুল হাসান এর সভাপতিত্বে, সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম খন্দকার এর সঞ্চালনায় শোক সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ জাতীয় কমিটির সদস্য রণ বিক্রম ত্রিপুরা।

বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের শাসনামলে বিএনপির নেতাকর্মীদের হাতে নিহত যুবলীগ নেতা শহীদ ইব্রাহিম চত্বরের ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন উপলক্ষে রণবিক্রম ত্রিপুরা বলেছেন, বিএনপি-জামায়াতের দু:শাসনের কথা খাগড়াছড়িবাসী ভুলেনি। ২০০১-২০০৬ সালে আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের ২৭ জন নেতাকর্মীকে হত্যার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, মানুষ যখন উন্নয়নের সুফল ভোগ করছে তখন আবারো বিএনপি ২০০১ সালে ফিরে যেতে চায়।

মাটিরাঙ্গা পৌরসভার মেয়র শামসুল হক জেলার নেতৃবৃন্দদের সাথে নিয়ে মাটিরাঙ্গা পুরাতন হাসপাতালের মোড়ে শহীদ ইব্রাহীম চত্বর এর উদ্বোধন করেন। পরে শহীদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া-মোনাজাতের মধ্যে দিয়ে শোক সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশে আওয়ামী লীগ খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ও খাগড়াছড়ি পৌরসভার মেয়র নির্মলেন্দু চৌধুরী, সহ সভাপতি ও মাটিরাঙ্গা পৌরসভার মেয়র শামসুল হক।

শহীদ ইব্রাহীম চত্বর স্থাপন, শহীদ ইয়াছিন মেম্বার, শহীদ মোহাম্মদ আলী ও শহীদ ইব্রাহীম স্মরণে শোক সভায় প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্যে রাখেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ খাগড়াছড়ি জেলার শাখার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও পার্বত্য জেলা পরিষদ খাগড়াছড়ি চেয়ারম্যান মংসুইপ্রু চৌধুরী অপু।

মংসুইপ্রু চৌধুরী অপু  বলেন, বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের শাসনামলে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের এলাকা ছাড়া করা আর সরকারী টাকায় উপজেলা থেকে ইউনিয়ন পর্যায়ে বিএনপির অফিস করা ছাড়া ওয়াদুদ ভুইয়া আর কোন উন্নয়ন করেন বলে অভিযোগ করে তিনি আরো বলেন ওয়াদুদ ভুইয়া পাহাড়ে আবারো সন্ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করতে চায়। ওয়াদুদ ভুইয়াকে খাগড়াছড়িতে আর কোন সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড করতে দেয়া হবেনা বলে হুশিয়ারী উচ্চারণ করে যুবলীগের নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ থাকারও আহবান জানান তিনি।

এসময় বিশেষ বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক দিদারুল আলম, মাটিরাঙ্গা উপজেলা শাখার সভাপতি এম হুমায়ুন মোরশেদ খান, মাটিরাঙ্গা পৌর শাখার সভাপতি হারুনুর রশিদ ফরাজি, যুবলীগ খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক কে. এম ইসমাইল হোসেন প্রমূখ।

 

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখে পাঠাতে পারেন আমাদের। এছাড়া যেকোনো সংবাদ বা অভিযোগ লিখে পাঠান এই ইমেইলেঃ [email protected]