• শনিবার   ২৫ জুন ২০২২ ||

  • আষাঢ় ১২ ১৪২৯

  • || ২৫ জ্বিলকদ ১৪৪৩

দৈনিক খাগড়াছড়ি

খাগড়াছড়িতে মহানবী (সা.) কে কটুক্তির প্রতিবাদ

দৈনিক খাগড়াছড়ি

প্রকাশিত: ১০ জুন ২০২২  

ছবি- দৈনিক খাগড়াছড়ি।

ছবি- দৈনিক খাগড়াছড়ি।

 

বিশ্ব নবী হযরত মোহাম্মদ (সা.) ও মা আয়েশা (রা.)কে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ  ও অবমাননাকর মন্তব্য এবং ভারতের সংখ্যালঘু মুসলমানদের উপর বর্বরোচিত হামলা ও নির্যাতনের প্রতিবাদে বিজিপি'র মুখপাত্র নুপুর শর্মা ও মিডিয়া সেল প্রধান নবীন জিন্দালের শাস্তি দাবী করে খাগড়াছড়ি জেলা সদরসহ বিভিন্ন উপজেলায় শুক্রবার মানববন্ধন করেছে নবী প্রেমিক তৌহিদী জনতা। 

বাদ জুমা জেলা শহরের বিভিন্ন মসজিদ থেকে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে মুসল্লিরা জেলা সদরের মুক্তমঞ্চে এসে জড়ো হয়ে বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকে। 

প্রায় এক ঘণ্টাব্যাপি মানববন্ধন ও পথসভায় বিভিন্ন মসজিদ, মাদরাসার ইমাম, শিক্ষক ও ইসলামপ্রিয় তৌহিদী জনতা বিশ্ব নবী(স.) ও মা আয়েশাকে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ ও অবমামনাকর মন্তব্য এবং ভারতের সংখ্যালঘু মুসলমানের উপর বর্বরোচিত হামলা ও নির্যাতনের তীব্র নিন্দা জানানোর পাশাপাশি ভারতীয় সকল পণ্য বর্জনের ডাক দেওয়া হয়।
এছাড়া বিজিপি মুখপাত্র নুপুর শর্মা ও মিডিয়া সেল প্রধান নবীন জিন্দালকে আইনের আওতায় এনে বিচারের মুখোমুখি করার জন্য বাংলাদেশের চলমান সংসদ অধিবেশনে নিন্দা প্রস্তাব আনতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার  সুদৃষ্টি কামনা করেন বক্তারা।

ছবি- সংগৃহীত।

এদিকে, জেলার মানিকছড়ি উপজেলায় শুক্রবার সকালে মানববন্ধন করেছে নবী প্রেমিক তৌহিদী জনতা। মানববন্ধনে ভারতীয় সকল পণ্য বর্জনসহ চলমান সংসদ অধিবেশনে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে সংসদে নিন্দা প্রস্তাব আনার জোরদাবী জানানো হয়।

শুক্রবার সকাল ১০টায় উপজেলার আমতল (খাগড়াছড়ি-চট্টগ্রাম)সড়কে নবী প্রেমিক ও সর্বস্তরের তৌহিদী জনতার উদ্যোগে আয়োজিত মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা পরিচালনা করেন হাফেজ বশির উদ্দীন। 

আয়োজক কমিটির আহবায়ক স্বাগত বক্তব্যে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন,মাওলানা নুর মোহাম্মদ। বক্তব্য রাখেন, মুফতি মো. আনোয়ার হোসাইন, মুফতি মাওলানা দিদারুল আলম কাসেমী, উপজেলা আ'লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. আলমগীর হোসেন, মুজাহিদ কমিটির নেতা মো. ওমর আলী,মানিকছড়ি  ইউনিয়ন আ'লীগের সভাপতি মো. আকতার হোসেন ভুইঁয়া, পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদের খাগড়াছড়ি জেলা সহ-সভাপতি মো. মোক্তাদের হোসেন, মাওলানা মো. আবু জাফর, মাওলানা  মো.নাছির উদ্দীন, মাওলানা  ফরিদ উদ্দীন প্রমূখ।

ছবি- সংগৃহীত।

অন্যদিকে, বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) ও হজরত আয়েশা (রা.)-কে নিয়ে কটূক্তি ও অবমাননাকর মন্তব্যের প্রতিবাদে নারায়ে তাকবির ধ্বনিতে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে পাহাড়ী জনপদ খাগড়াছড়ি। 

শুক্রবার (১০ জুন) দুপুরের দিকে   হাজার হাজার ধর্মপ্রান মুসলমান  ‘রাসূলকে কটূক্তি, মানি না মানবো না’,   স্লোগানে মাটিরাঙ্গা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে একত্রিত হয়ে বিশ্বনবীকে কটূক্তির প্রতিবাদ জানায়।

খিদমাতুল উম্মাহ ফাউন্ডেশন এবং ইমাম ও ওলামা কল্যান পরিষদ এ মানববন্ধনের আয়োজন করে।

এ সময় খাগড়াছড়ি-ঢাকা আঞ্চলিক সড়কে দুই কিলোমিটার দীর্ঘ মানববন্ধনে মাটিরাঙ্গা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতীব হাফেজ মাওলানা আলহাজ্ব মো. হারুনুর রশীদ, মাটিরাঙ্গা দারুচ্ছুন্নাহ মাদরাসার পরিচালক মাওলানা আনোয়ার হোসেন মিয়াজী, খাগড়াছড়ি জেলা কওমী মাদ্রাসা ওলামা ঐক্য পরিষদের সভাপতি মাওলানা আক্তারুজ্জামান ফারুকী, নতুনপাড়া জামে মসজিদের পেশ ইমাম মুফতী মো. আব্দুল হান্নান জুলফিকার ও মাটিরাঙ্গা বাজার ব্যবসায়ী পরিচালনা কমিটির সহসভাপতি মো. জসিম উদ্দিন ভুইয়া প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। 

ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধনে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) ও হজরত আয়েশা (রা.)-কে নিয়ে কটূক্তি ও অবমাননাকর মন্তব্য করেন ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির মুখপাত্র নূপুর শর্মা ও দিল্লি শাখার গণমাধ্যম প্রধান নবীন জিন্দালের আন্তর্জাতিক আদালতের মাধ্যমে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়ে বক্তারা বলেন, রাসূলকে নিয়ে কটূক্তি কোনো মুসলমান মেনে নিতে পারে না। রাসূল আমাদের আদর্শ। তাঁর আদর্শ আমাদের রক্তে। তাই এক বিন্দু রক্ত থাকা অবস্থায় রাসূলের নামে কোনো অবমাননা মেনে নেয়া হবে না। মানববন্ধন থেকে ভারতীয় পণ্য বয়কটের ডাক দেয় বক্তারা। 

ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধনে মাটিরাঙ্গা পৌরসভার মেয়র মো. শামছুল হক, মাটিরাঙ্গা ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসার অধ্যক্ষ কাজী মো. সলিম উল্যাহ, মাটিরাঙ্গা প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি মো:জসীম উদ্দিন জয়নাল,মাটিরাঙ্গা প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক মো:মুজিবুর রহমান ভূইঁয়া, মাটিরাঙ্গা পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র মোহাম্মদ আলী, ৬নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো. শহীদুল ইসলাম সোহাগ, ৩নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো. আলাউদ্দিন লিটন ও মাটিরাঙ্গা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ পরিচালনা কমিটির সাধারন সম্পাদক মো. জসিম উদ্দিন ডিলার ছাড়াও মাটিরাঙ্গা পৌরসভার বিভিন্ন মসজিদ থেকে আসা কয়েক হাজার মুসল্লী উপস্থিত ছিলেন।

ছবি- দৈনিক খাগড়াছড়ি।

এছাড়া, মহানবী (সা.)-কে নিয়ে কটূক্তির প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে পানছড়ির সর্বস্তরের মুসলিম তৌহিদী জনতা ।

শুক্রবার (১০ জুন) বিকাল ৩টায় বিক্ষোভ মিছিলটি পানছড়ি বাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ প্রাঙ্গন থেকে বের হয়ে উপজেলার প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে মুক্তিযোদ্ধা স্কয়ারে এসে প্রতিবাদ সমাবেশ করে।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করে পানছড়ি বাজার জামে মসজিদের খতিব মাওলানা মো. দলিলুর রহমান। সমাবেশে বক্তারা মহানবী (সা.) ও হজরত আয়েশা (রা.) কে নিয়ে অবমাননাকর বক্তব্যর তীব্র নিন্দা জানান।

মো. সিরাজুল ইসলামের সঞ্চালিত প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন, ইসলামি আন্দোলনের বাংলাদেশ খাগড়াছড়ি জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা রাশেদুল ইসলাম, ইমাম ওলামা পরিষদের সভাপতি মাওলানা মুফতি মো. মহিউদ্দিন, মাওলানা আলী হোসেন, মাওলানা হেলাল উদ্দিন, হাফেজ মো তাজুল ইসলাম ইসলাম প্রমুখ।

ছবি- দৈনিক খাগড়াছড়ি।

খাগড়াছড়ির গুইমারায়ও মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে তৌহিদী জনতা ও ওলামা ঐক্য পরিষদ।

শুক্রবার (১০ জুন) জুমা’র নামাজের পর গুইমারা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ, মুসলিমপাড়া জামে মসজিদ, জালিয়াপাড়া কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ, সিন্দুকছড়ি জামে মসজিদ সহ উপজেলা বিভিন্ন মসজিদের মুসল্লীরা খাগড়াছড়ি চট্টগ্রাম মহাসড়কে পুলিশ বক্স এর সামনে আয়োজিত প্রতিবাদ সমাবেশে জড়ো হয়।

মাওলানা সাইফুল ইসলাম এর সঞ্চালনায় প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা ওসমানী গণী, জালিয়াপাড়া কেন্দ্রী জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা মুফতি নোমান,হাফছড়ি মাদ্রাসার পরিচালক আমীনুল ইসলাম প্রমুখ।

একই সময় খাগড়াছড়ি জেলার  রামগড় ও মহালছড়ি,দিঘীনালা, লক্ষীছড়ি উপজেলায়ও বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) ও হজরত আয়েশা (রা.)-কে নিয়ে কটূক্তি ও অবমাননাকর মন্তব্যের প্রতিবাদে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখে পাঠাতে পারেন আমাদের। এছাড়া যেকোনো সংবাদ বা অভিযোগ লিখে পাঠান এই ইমেইলেঃ [email protected]