• শনিবার   ২৫ জুন ২০২২ ||

  • আষাঢ় ১২ ১৪২৯

  • || ২৫ জ্বিলকদ ১৪৪৩

দৈনিক খাগড়াছড়ি

মহালছড়িতে মাদক উৎপাদন ঠেকাতে সেনাবাহিনীর অভিযান

দৈনিক খাগড়াছড়ি

প্রকাশিত: ৬ জুন ২০২২  

ছবি- দৈনিক খাগড়াছড়ি।

ছবি- দৈনিক খাগড়াছড়ি।

 

খাগড়াছড়ি জেলার মহালছড়িতে আনুমানিক ৪০ শতক গাঁজা ক্ষেত (২২০ কেজি) ধ্বংস করেছে সেনাবাহিনীর সদস্যরা।

সোমবার ( ৬ জুন) সকাল ১০ টার সময় মহালছড়ি উপজেলার দাতকুপিয়া আর্মি ক্যাম্পের আওতাধীন বিহারপাড়া এলাকায় বিশেষ টহল চলাকালীন সময়ে আনুমানিক প্রায় ৪০ শতক গাঁজা ক্ষেত এর সন্ধান পায় মহালছড়ি সেনা জোন। 

সূত্র জানায়, দুর্গম পাহাড়ে গাঁজার সাম্রাজ্য গড়ে তুলেছে মাদক ব্যবসায়ীরা এমন গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে খাগড়াছড়ি সেনা রিজিয়নের আওতাধীন মহালছড়ি সেনা জোনের জোন উপ-অধিনায়ক মেজর মো. আবু ফয়সাল তুষার এর নেতৃত্বে সেখানে অভিযান পরিচালনা করা হয়। 

পরবর্তীতে পুলিশ ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা, স্থানীয় জনসাধারণের উপস্থিতিতে স্থানীয় প্রশাসনের মাধ্যমে গাঁজা ক্ষেত পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়। এসময় মহালছড়ি উপজেলার মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রক কর্মকর্তা সহকারী পরিদর্শক মো. জাকির হোসেন এবং মহালছড়ি থানার এস আই মো. মোস্তাফিজুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

সূত্র জানায়, গহীন অরণ্য ও দুর্গম পাহাড়ি এলাকায় যেখানে জনবসতি তুলনামূলক কম এরকম জায়গায় মাদক সন্ত্রাসীরা নিরাপদ এলাকা হিসাবে বেছে নিয়েছে। আঞ্চলিক বিচ্ছিন্নতাবাদী দলগুলোর সন্ত্রাসী কার্যক্রম পরিচালনা, অস্ত্র ক্রয় ও তাদের বেতন ভাতাসহ অন্যান্য প্রশাসনিক কাজে মাদক ব্যবসা থেকে অর্জিত অর্থ ব্যয় করা হয়ে থাকে। প্রত্যন্ত ও দুর্গম এই এলাকায় জনসাধারণের চলাচল নেই বললেই চলে। কিন্তু সেনাবাহিনী কর্তৃক নজরদারী ও শক্ত গোয়েন্দা কার্যক্রমের ফলে গাঁজা ক্ষেতের সন্ধান পায় মহালছড়ি জোন। 

জানা যায়, গাঁজা চাষের সাথে যুক্ত ছিলেন স্থানীয় বিহারপাড়ার অনিল কুমার চাকমার ছেলে ও জমির মালিক দিলিপ কুমার চাকমা (৫০)। তিনি বিহারপাড়া এলাকার বাসিন্দা ছিলেন। বর্তমানে তিনি পলাতক রয়েছেন। 

সেনাবাহিনী জানায়, মহালছড়ি জোনের মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য মহালছড়ি জোনের এটি একটি ক্ষুদ্র প্রয়াস মাত্র। ভবিষ্যতেও মহালছড়ি জোনের এমন কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। 

স্থানীয়রা জানান, নিরাপত্তা বাহিনী কর্তৃক এই ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকায় জনমনে স্বস্থি ফিরে এসেছে। মহালছড়ি জোন সর্বদা সাধারণ মানুষের পাশে থেকে জনসাধারণের জীবনযাত্রার মান এবং নিরাপত্তা নিশ্চিত করে আসছে। মহালছড়ি সেনা জোনের এমন কার্যক্রম সন্ত্রাসীদের বিভিন্ন প্রকার মাদকের চাষ বন্ধ এবং মাদক নিষ্ক্রিয় করতে সক্ষম হবে বলে অনুমেয়। মহালছড়ি জোন কর্তৃক পূর্বে এই ধরণের বিশেষ অপারেশন পরিচালনা করা হয়েছে এবং বিভিন্ন প্রকার কার্যক্রম গ্রহণের ফলে সাধারণ মানুষের জোনের প্রতি, তথাপি নিরাপত্তা বাহিনীর প্রতি আস্থা বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং পারস্পরিক সম্পর্কের উন্নতি সাধিত হচ্ছে।

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখে পাঠাতে পারেন আমাদের। এছাড়া যেকোনো সংবাদ বা অভিযোগ লিখে পাঠান এই ইমেইলেঃ [email protected]