• শুক্রবার   ০৫ মার্চ ২০২১ ||

  • ফাল্গুন ২১ ১৪২৭

  • || ২০ রজব ১৪৪২

দৈনিক খাগড়াছড়ি

রাত-বিরাতে নারীদের ফোন করেন রিজভী, রুমিন ফারহানার হুঙ্কার

দৈনিক খাগড়াছড়ি

প্রকাশিত: ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

ছবি- সংগৃহিত।

ছবি- সংগৃহিত।

 

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর ফোন কলে চরম বিপাকে থাকেন বিএনপি যুব মহিলা দলের নেতাকর্মীরা। এরই মধ্যে একাধিকবার তার বিরুদ্ধে নালিশও হয়েছে। এর আগে কর্মসূচির নামে দিন-রাত মেসেজ ও ফোন করে বিরক্ত করা হতো মহিলা দলের সভাপতি ও বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসের স্ত্রী আফরোজা আব্বাসকে। এ নিয়ে রিজভীকে কয়েকবার শাসিয়ে গিয়েছিলেন মির্জা আব্বাস ও তার পরিবার।

তবে এবার আফরোজা আব্বাসের সঙ্গে সঙ্গে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের পুত্রবধূ, বিএনপির অপর নেতা নিতাই রায়ের মেয়ে ও বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য নিপুণ রায় চৌধুরীকে রাত বিরাতে ফোন দিয়ে বিরক্ত করছেন রুহুল কবির রিজভী।

মহিলা দল সূত্রে জানা যায়, বিভিন্ন সময়ে আন্দোলন কর্মসূচিতে উপস্থিত থাকার চেষ্টা করেন দলীয় কর্মী-সমর্থকরা। বিগত সময়ে রাজপথে তারা বেশ কিছু মিছিলও করেছে। তা সত্ত্বেও বারবার মহিলা দলের নেতাদের মেসেজ ও ফোন দিয়ে ‘বিরক্ত’ করেন রিজভী।

এ নিয়ে মহিলার দলের পক্ষ থেকে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুলকেও জানানো হয়েছে বলে দলের ভেতরের একটি সূত্র জানিয়েছে। সর্বশেষ গত ২০ ফেব্রুয়ারি গভীর রাতে আফরোজাকে ফোন দিয়ে একুশে ফেব্রুয়ারির জন্য প্রস্তুতি নেয়ার কথা বলেন রিজভী। যদিও আগের দিনই এ ব্যাপারে দলের পক্ষ থেকে সব কর্মসূচির কথা জানিয়ে দেয়া হয়েছিল। আফরোজা আব্বাসের সঙ্গে কথা শেষে রিজভী ফের ফোন দেন নিপুণ রায়কে। এরপর ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানাকে। তবে রুমিনের এক ধমক খেয়ে চতুর্থ কোনো নারীকে ফোন দিয়েছেন কি না, এমন খবর পাওয়া যায়নি।

এদিকে মহিলা দলের অপর এক নেত্রী বলেন, রিজভী ভাইয়ের এই অভ্যাসটা পুরনো। মহিলা দল সব সময় দলের সব কর্মসূচিতে সক্রিয় থাকলেও তিনি অযথাই মেসেজ দিয়ে বা কল দিয়ে বিরক্ত করেন। ইদানীং এমনিতেও আফরোজা আপা অসুস্থ, নিপুণ রায় স্বামীর সাথে থাকেন। রাতে ঘুমানোর সময় তাদের ফোন দিলে তারা বিরক্ত হবেন, এটাই স্বাভাবিক।

এ বিষয়ে রিজভী আহমেদের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।