• বুধবার   ১৪ এপ্রিল ২০২১ ||

  • বৈশাখ ১ ১৪২৮

  • || ০১ রমজান ১৪৪২

দৈনিক খাগড়াছড়ি

মাটিরাঙ্গার ঘটনায় সম্প্রীতি বিনষ্টকারীদের ছাড় নয়

দৈনিক খাগড়াছড়ি

প্রকাশিত: ৬ এপ্রিল ২০২১  

ছবি- সংগৃহিত।

ছবি- সংগৃহিত।

 

সম্প্রতি খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলার মাটিরাঙ্গা উপজেলার তবলছড়ি-তাইন্দং এলাকায় বাঙালি কৃষকদের উপর হামলা ও ব্রাশফায়ার এর ঘটনায় উত্তপ্ত পরিস্থিতি বিরাজ করছে। গত ৪ এপ্রিল সৃষ্ট এ ঘটনায় পাহাড়ী-বাঙ্গালী সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখতে স্থানীয় পাহাড়ী ও বাঙ্গালীদের নিয়ে আজ (৬ এপ্রিল) তবলছড়ি ইউনিয়ন পরিষদে এক সম্প্রীতি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠকে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে গুইমারা রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ মোয়াজ্জেম হোসেন, ডিজিএফআই ডেট কমান্ডার কর্ণেল মোঃ খুরশীদ আলম, যামিনী পাড়া জোন (২৩ বিজিবি)  অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মোঃ মিজানুর রহমান, জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আব্দুল আজিজমহ উপজেলার স্থানীয় জনপ্রিতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

এসময় বক্তব্য রাখতে গিয়ে খাগড়াছড়ির সংসদ সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা সকলকে শান্ত থাকার পরামর্শ দিয়ে বক্তব্য রাখেন। এছাড়া রিজিয়ন কমান্ডার সবাইকে প্রচলিত আইন মেনে চলার আহবান জানান। তারা বলেন, কোন অবস্থাতেই সম্প্রীতি বিনষ্টকারীদের ছাড় দেয়া হবেনা।

আলোচনা সভায়, পাহাড়ি-বাঙালি সবাই সম্প্রতির বন্ধন বজায় রেখে একসাথে বসবাস এবং প্রশাসন ও আইন শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর প্রতি শ্রদ্ধা রেখে যেকোন পরিস্থিতিতে প্রশাসনকে সন্ত্রাসীদের বিষয়ে তথ্য দেওয়ার আহবান জানানো হয়। এছাড়া ভবিষ্যতে এই রকম ঘটনা যাতে না ঘটে সবাইকে সে ব্যাপারে সচেষ্ট থাকার জন্য আহবান জানানো হয়। 

উল্লেখ ৪ এপ্রিল ওই এলাকার স্থানীয় বাঙালিরা পাশের পাহাড়ে কচু চাষের কাজ করছিলেন। এসময় অস্ত্রধারী পাহাড়ি জঙ্গি সন্ত্রাসীরা ব্রাশফায়ার করে। এক পর্যায়ে আহতদেরসহ অর্ধশত বাঙালি কৃষক নারী-পুরুষকে জিম্মি করে রাখে। এ ঘটনায় গুলিবিদ্ধসহ ১০/১২ জন গুরুতর আহত হয়েছেন। তারপর থেকে ওই এলাকায় থমথমে পরিবেশ বিরাজ করছে।

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখে পাঠাতে পারেন আমাদের। এছাড়া যেকোনো সংবাদ বা অভিযোগ লিখে পাঠান এই ইমেইলেঃ [email protected]