• বুধবার   ১৪ এপ্রিল ২০২১ ||

  • বৈশাখ ১ ১৪২৮

  • || ০১ রমজান ১৪৪২

দৈনিক খাগড়াছড়ি

খাগড়াছড়িতে ভ্রাম্যমাণ আদালত দেখলেই মানুষ মাস্ক মুখে দেয়

দৈনিক খাগড়াছড়ি

প্রকাশিত: ৭ এপ্রিল ২০২১  

শহরে চলছে মাইকিং। চলছে না গাড়ি-যান। অথচ তারপরও রাস্তায় নেমে জমায়েত হচ্ছেন লোকজন। ভিড় করছেন অযথা। পাহাড়বেষ্টিত খাগড়াছড়িতে দেখা যাচ্ছে এমনই দৃশ্য। 
করোনার এই দু:সময়েও সচেতন নয় এখানকার ছোট বড় কেউই। সেনাবাহিনী, প্রশাসন কিংবা স্থানীয় সমাজসেবী প্রতিষ্ঠানগুলো মানুষের জন্য কাজ করে গেলেও তাতে গা মাখছেন না পাহাড়ে বসবাসরত সাধারণ মানুষ। আর তাদের অসচেতনতার কারণেই এই অঞ্চলে বেড়ে চলছে করোনার রুগি। আক্রান্ত হচ্ছেন অনেক মানুষ। 
সরজমিনে দেখা যায়, খাগড়াছড়িতে লকডাউন ঢিলেঢালাভাবে চলছে। খাগড়াছড়িতে জরুরি প্রয়োজন ব্যতিত অন্য দোকানপাট বন্ধ থাকলেও বাইরে সাধারণ মানুষের উপস্থিতি বরাবরের মতই আছে। 
দূরপাল্লার যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকলেও অভ্যন্তরীণ সড়কে যান চলাচল অনেকটা স্বাভাবিক। পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে লকডাউন মানতে এবং বাইরে অযথা ভিড় না করতে মাইকিং করা হচ্ছে।
খাগড়াছড়ি সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ রশিদ জানান, আমরা মাইকিং করে সাধারণ মানুষকে স্বাস্থ্য সচেতনতা মানার অনুরোধ করছি। শহরে মাইকিং করা হচ্ছে।
সচেতন মানুষরা জানান, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বাড়লেও সচেতনতার বালাই নেই খাগড়াছড়িতে। জেলার সাধারণ মানুষের মধ্যে সরকারি নির্দেশনা প্রতিপালনের চিত্র হতাশজনক। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে জেলা পর্যায়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের অভিযান, জরিমানা, মাইকিংয়ের পরও মানুষ সচেতন হচ্ছে না।
অধিকাংশ মানুষ এখনো মাস্ক ব্যবহার করছে না। জেলাজুড়ে মানুষের উপস্থিতিও স্বাভাবিক। এতে জেলায় করোনা সংক্রমণ বাড়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। 
খাগড়াছড়িতে নতুন করে আরো ১০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৪৫ জন। যাদের মধ্যে দু’জন হাসপাতালে এবং বাকি ৪৩ জন নিজ নিজ বাসায় কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন।
 
সিভিল সার্জন অফিস সূত্রে জানা যায়, জেলায় এখন পর্যন্ত মোট ৫ হাজার ৪শ ৫১ জনের করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এরমধ্যে ৮৫৫ জন ব্যক্তির শরীরে করোনা ধরা পড়ে। ইতোমধ্যে ৮১০ জন সুস্থ হয়েছেন।   
 খাগড়াছড়ির সিভিল সার্জন ডা. নূপুর কান্তি দাশ জানান, মানুষের মধ্যে সচেতনতার যথেষ্ট অভাব রয়েছে। এখনো সবাই স্বাস্থ্যবিধি ভালো করে মানছেন না। এতে করোনা সংক্রমণ বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে।  
এদিকে স্বাস্থ্যবিধি মানাতে তৎপর খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসন। গতকাল জেলায় ভ্রাম্যমাণ আদালত ১৩৯টি মামলায় ৩২ হাজার ৮০ টাকা জরিমানা আদায় করেন। ভ্রাম্যমাণ আদালত দেখলেই মানুষ মাস্ক মুখে দেয়। কিন্তু সব সময় পরার বিষয়টি উপেক্ষিত।  
 

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখে পাঠাতে পারেন আমাদের। এছাড়া যেকোনো সংবাদ বা অভিযোগ লিখে পাঠান এই ইমেইলেঃ [email protected]